ছেলেকে -একঃ স্কুলে পড়ার উদ্দেশ্য

ছোট বেলা ছেলেকে শিখিয়ে দিবো, তোমার স্কুলে পড়ার উদ্দেশ্য ভদ্রবেশে টাকা কামাই। এটার মধ্যে কোন ছল চাতুরী নাই। তুমি চাইলে এখনো সেটা শুরু করতে পারো – বাবার কাজে সহযোগিতা করে। নিজে পড়ালেখার পাসাপাসি কোন কাজ করে।

ছোট কাজগুলো সৃজনশীলভাবে করাকে আমরা বড় কাজ বলি। যেমন- রাস্তার আচার বিক্রেতা আর সুপারশপের আচারের বয়ম বিক্রয় করা প্রান কোম্পানীর কর্মকর্তাকে আমরা দুইভাবে দেখি।
আর যদি ভদ্র হতে হয় তাহলে তাহলে ভদ্র ও বিনয়ী লোকদের সাথে মিশো।

যদি জ্ঞানী হতে চাও তহলে ভ্রমণ করো, সেটা কঠিন হলে রিসার্চ করো। বই পড়ার মাধ্যমে তুমি হয়তো বা সহজে ভ্রমণ করতে পারবা, এজন্য স্কুলে বই পড়ায়। স্কুলের পরীক্ষা কখনো তোমার মেধা যাচাইকারী না।
স্কুলের ফেলকরা ছাত্ররা অনেক অনেক জায়গা চিনতো, প্রচুর ভ্রমণ করতো তারা, আড্ডা দিতো- আমরা সেই সব স্থানের নাম বইয়ে পড়তাম।
তুমি চাইলে ফেল করতে পারো কিন্তু সেই সময়টা বই না পড়ে তুমি কি করেছো তা আমাকে জানাবে।

2 thoughts on “ছেলেকে -একঃ স্কুলে পড়ার উদ্দেশ্য”

  1. Pingback: ছেলেকে-দুইঃ বিনয় – মাহবুবের লেখা

  2. Pingback: ২০১৮ ও ২০১৯ সালে কি কি করলাম তার তালিকা – মাহবুবের লেখা

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *