র‌্যান্ডম ইন্টারেস্ট এবং ফোকাস

মানুষের আকাংক্ষা আসলে বিভিন্ন দিকে ছড়ায়। এই ছড়ানো আকাংক্ষার মধ্যে গুটিকয়েকে ধারাবাহিক বিনোদন পায়। আর এ থেকেই মানুষ কোন একটিতে ফোকাসড বলা চলে।

কাজের ক্ষেত্রে বিভিন্ন কাজ করতে গেলে তার গভীর জ্ঞান অন্বেষণ করা সম্ভব হয়ে ওঠে না।

আসলে যারা কর্মক্ষেত্রে বা ব্যবসায়িক কাজে কোন ভাবে বেশ দক্ষ হয়ে উঠেছেন তাদের অধিকাংশ কিভাবে দক্ষ হয়েছেন? কোন একটি কাজে অনেক দক্ষ করে তোলাটাই এখনকার চ্যালেঞ্জ। আস পাসের লোক যা না পারে আপনি তা পারেন-এমন কিছু আপনার কাজের যোগ্যতা ও মান বাড়িয়ে দিবে। বাজারে আপনার কর্ম বা সেবার মান আজীবন উপার্জন করতে পারবেন।

অনেকদিন একই কাজ করে যাওয়াঃ

অধিকাংশ লোকই দক্ষ হয়ে ওঠে একই কাজ ধারাবাহিক অনেক বছর করার কারনে। সে অনেকগুলো সমস্যার মোকাবেলা করে এবং সে জানে তার জুনিয়র কি সমস্যায় জরিয়ে যেতে পারে-আর তাই সতর্ক করে। এভাবে সে টিম লিডার হতে পারে।

একই রকমের বিভিন্ন প্রোজেক্টে কাজ করাঃ

যারা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সার্ভিস দিয়ে থাকে বা ফ্রিল্যান্সার তাদের তাদের স্কিল লেভেল অন্যদের চেয়ে দ্রুত বাড়ে। অবশ্য সে যদি একই ধরনের কাজ করে থাকে।

অনেক কনসালটেন্ট ফার্ম আছে যারা বিভিন্ন সার্ভিস অনেক বড় প্রতিষ্ঠানে দিয়ে থাকে। মেশিন প্রস্তুতকারক অনেক ধরনের সেবা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দিয়ে থাকে। এই কাজে কোন ব্যক্তি এক প্রতিষ্ঠানে কাজ করা লোকের চেয়ে অনেক বেশি দক্ষ হয়ে ওঠে।

সেল্ফ ইন্টারেস্ট ও গবেষণাঃ

ব্যবসায়ীদের মধ্যে যারা সফল তাদের দেখবেন তার ব্যবসা থেকে সে লাভবান হওয়ায় আরো বেশি কাজ করেছে। তারপর নিজে বিভিন্নভাবে চিন্তা ভাবনা করে নতুন স্টেপ নিয়েছে বা প্রোজেক্ট বড় করার চেস্টায় এগিয়ে গেছেন। এধরনের ব্যক্তির ইউনিক আইডিয়া তাদের নতুন পথের সন্ধান দেয় যার প্রতিযোগী কম হয়। ফলে সে এগিয়ে যায় সহজে।

আমরা ইদানিং বিভিন্ন জায়গায় কোন একটি বিষয়ে ফোকাস দেওয়ার কথা সুনছি। তবে একজন নিজের ফোকাস বজায় রাখবেই বা কি করে যদি সে উপরের চক্রে না পরে? চর্চার ক্ষেত্রে বাধ্য করা যায় না।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *