গভীর জ্ঞান

কোন বিষয় সম্পর্কে অনেক ভাল জানেন। এবার এক কাজ করুন, কাউকে সেই বিষয়টা শিখানো শুরু করুন। দেখবেন অনেক কিছুই জানেন না। সেগুলো শিখুন। এবার আরেক কাজ করুন। এই বিষয়ে একটা বই লিখুন। দেখবেন আরো অনেক কিছুই জানেন না। এবার আরেকটা কাজ করুন, এই বিষয়ে বাস্তব জীবনে অনেক বছর ধরে কাজ করছে তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করতে যান। দেখবেন আপনি আরো অনেক কিছু জানেন না। অবশ্য অনেক কিছুই জানেন যেগুলো কাজেই লাগছে না। একটা বিষয়ই বারবার করতে হচ্ছে।
এবার একটু ভাবুন- আপনি জানেন না কেন?
আসলে ঐগুলো আপনার দরকার হয় নি। এখন দরকার। তাই শিখাও হবে।
প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার উপরে যারা রাগ করেন। যারা শিক্ষা ব্যবস্থার উপর আস্থা রাখেন না, তারা আসলে ভিন্নভাবে দুনিয়াটা দেখেন। তারা চায় যা নিয়ে কাজ করবে তা স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াবে। তা কিন্তু কখনোই সম্ভব না। শিখতে হলে আপনাকে কাজে হাত দিতে হবে আগে।
স্কুল কলেজ আর বিশ্ববিদ্যালয় আপনাকে অনেক কিছু শিখায়। হালকা হালকাভাবে। যাতে আপনি অনেকের মধ্য থেকে একটা জিনিস পছন্দ করতে পারেন। যদি পছন্দ করে ফেলতে পারেন, সেই বিষয়ে বাসা বসে স্টাডি করুন। যদি সময় কম হয় তাহলে পড়া লেখা ছেড়ে দেন। সম্পুর্ণ সময় আপনার বিষয়ে দিন।

184 total views, 1 views today