সমাজসেবা

আইডিয়া-১.

বিনা খরচে সমাজসেবা করতে চাইলে। আপনার ব্যাংকের জমানো টাকার চাউল (বা অন্য পন্য) সিজনের সময় কিনে রাখুন। একই দামে ৬ মাস পর বিক্রি করুন। জায়গার ভাড়া এবং বিক্রি করার জন্য যে লোকবল লাগবে তাদের খরচ বিক্রিত দামের সাথে যোগ করুন।
আপনার টাকা আপনি ফেরত পেলেন সেই সাথে ন্যায্যমূল্যে অনেকে চাউল পেল।
এটা করতে গেলে একটা ট্রাস্ট গঠন বা সংগঠন লাগবে।

আইডিয়া-২.

আবার মুসলিম বা অন্য কমিউনিটি যদি নিজেদের মধ্যের নিপিরিত/দরিদ্র লোকদের সাহায্য করতে চায় তাহলে দান না করেও দানের চেয়ে বড় কিছু সম্ভব। এ জন্য আপনাকে একটি আয় করার মতো প্রতিষ্ঠান তৈরী করতে হবে। কোন কারখানা, হাসপাতাল, গাড়ি, বাড়িও হতে পারে। দানকরা টাকা এবং ইনভেস্টমেন্টের টাকা আলাদাভাবে হিসাব করে একটি প্রতিষ্ঠান তৈরী করতে হবে। সেখান থেকে মাসিক লাভের একটা অংশ (হতে পারে ২০-৩০%) প্রতিমাসে দান করলেন।
যারা ইনভেস্ট করলো তাদের টাকা লভ্যাংশ ছাড়া ফেরত দিবেন। ইনভেস্টটাই ইনভেস্টরের দান।
আপনার প্রতিষ্ঠানে আপনার কমিউনিটির দরিদ্র/ইনভেস্টর/দানকারীদের বংশধরকে চাকরী ক্ষেত্রে প্রধান্য দিতে পারেন।
আর হিসাবের ক্ষেত্রে সব হিসাব স্বচ্ছতার জন্য ওয়েবে পাবলিক করে দিতে পারেন।
এ ক্ষেত্রে সমাজে যে বড় অর্থনৈতিক পরিবর্তন হতে পারে-
১. সুদভিত্তিক ইনভেস্টের মানষিকতা দূর হবে।
২. মজুতদারদের প্রভাবমুক্ত অর্থনীতি তৈরী করা সম্ভব হবে।
৩. যতদিন এই প্রতিষ্ঠান দান করে যাবে ততদিন আপনি সোয়াব পাবেন।
এই আইডিয়ার উপর কেউ কাজ করতে চাইলে আমি আগ্রহী।

1 Comment

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *